Skip to content

ই নামজারি যাচাই ও নামজারি আবেদন চেক

    ই নামজারি খতিয়ান একটা জমির প্রান বলা চলে, অনেক সময় আমাদের ই নামজারি খতিয়ান চেক করতে হয় এই জন্য ভূমি অফিসে গিয়ে আমাদের বিভিন্ন সমস্যায় পরতে হয় এবং টাকাও খরচ হয়। এছাড়া নতুন ই নামজারি আবেদন করলে সেটাও চেক করতে হয়। তু কোন সমস্যা ছাড়া আপনি যদি এখন ঘড়ে বসেই আপনার মোবাইল দিয়ে ই নামজারি যাচাই করতে পারেন তাহলে কেমন হয়? 

    আরও পড়ুনঃ নাম দিয়ে জমির মালিকানা যাচাই

    হ্যাঁ ঠিক শুনেছেন আজকে আমরা মোবাইল দিয়ে অনলাইনে ই নামজারি খতিয়ান যাচাই করব। অনলাইনে ই নামজারি যাচাই করার জন্য আমাদের কোন টাকার প্রয়োজন নেই, এবং কারো কাছে জেতেও হবেনা।

    অনলাইনে ই নামজারি খতিয়ান চেক দুই ভাবে করা যায়, মোবাইল অ্যাপ দিয়ে এবং ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। এই দুটি উপায়ে ই নামজারি খতিয়ান অনুসন্ধান করার জন্য আমাদের কিছু তথ্য প্রয়োজন হবে। তবে সেগুলো খুবি সাধারণ তথ্য যা আমাদের সকলেরই জানা থাকে।

    আরও পড়ুনঃ ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান

    তু চলোন আর বেশি কথা না বলে দেখে নেওয়া যাক কিভাবে অনলাইনে ই নামজারি খতিয়ান অনুসন্ধান করতে হয়, তবে এর আগে অবশ্যই জেনে নিতে হবে E namjari যাচাই করার জন্য আমাদের কোন কোন ডকুমেন্ট বা তথ্য প্রয়োজন। 

    ই নামজারি খতিয়ান চেক করতে কি প্রয়োজন? 

    ই নামজারি খতিয়ান অনলাইনে চেক করার জন্য দরকার হবে আপনার জমির ঠিকানা, নামজারি খতিয়ান অনুসন্ধান করতে হলে অবশ্যই আপনার জমির ঠিকানাটি সঠিক ভাবে জানা থাকা লাগবে। 

    জমির ঠিকানাঃ বিভাগ, জেলা, উপজেলা, মৌজা। 

    তারপর দরকার হবে আপনার ই নামজারি খতিয়ানের তথ্য, ই নামজারি খতিয়ান অনলাইনে চেক করার জন্য অবশ্যই আপনার ই নামজারি খতিয়ানটির যেকোন একটি তথ্য দরকার হবে। 

    যেমন – খতিয়ানের নম্বর, জমির দাগ নম্বর, খতিয়ানে থাকা জমির মালিকানা নাম, খতিয়ান অনুযায়ী মালিকের পিতার নাম, অথবা মালিকার স্বামীর নাম। 

    এই তথ্য গুলোর মধ্যে যেকোন একটি তথ্য আপনার জানা থাকলেই অনলাইনে ই নামজারি যাচাই করতে পারবেন। 

    ই নামজারি যাচাই করার পদ্ধতি

    ই নামজারি খতিয়ান দুই ভাবে অনুসন্ধান করতে পারেন, দুটি মাধ্যম হলোঃ 

    মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে ই নামজারি যাচাই (তুলনা মুলক সহজ)

    ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ই নামজারি খতিয়ান চেক (কিছুটা কঠিন)

    ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ই নামজারি খতিয়ান যাচাই করা তুলনা মুলক একটু কঠিন, তাই আমার পরামর্শ থাকবে আপনারা মোবাইল অ্যাপ দিয়ে ই খতিয়ান অনুসন্ধান করার চেষ্টা করুন। 

    মোবাইল অ্যাপ দিয়ে ই নামজারি যাচাই

    মোবাইল অ্যাপ দিয়ে ই নামজারি অনলাইনে যাচাই করতে হলে অবশ্যই প্রথমে Google Store থেকে উক্ত অ্যাপটি ডাউনলোড করতে হবে। 

    ডাউনলোড করার জন্য Google Play Store যান এবং তারপর এটি লিখে সার্চ করুন “eKhatian” এটি লিখে সার্চ করলেই অ্যাপটি চলে আসবে, Install বাটনে ক্লিক করে অ্যাপটি ডাউনলোড করুন। তারপর eKhatian অ্যাপটি ওপেন করুন, 

    প্রথমেই অর্থাৎ হোম পেইজে একটি বাটন দেখতে পারবেন, “খতিয়ান” এটাতে ক্লিক করুন। তারপর ধাপে ধাপে আপনার জমির স্থান অনুযায়ী ঠিকানা, জমির খতিয়ানের ধরন, এবং খতিয়ানের তথ্য দিয়ে সাবমিট করুন। 

    প্রথম ধাপ – বিভাগ এবং জেলা 

    এখানে এসে প্রথমেই আপনার বিভাগ বাছাই করে নিন, যেমন আমার বিভাগ সিলেটে তাই আমি সিলেট নির্বাচন করলাম। 

    তারপর জেলা নির্বাচন বাটনে ক্লিক করুন তাহলে আপনি যেই বিভাগ নির্বাচন করেছেন সেটার বিতরে থাকা সকল জেলার নাম আসবে, এখান থেকে আপনার জেলা নামটি বাচে নিন। যেমন – আমার জেলা হবিগঞ্জ তাই আমি হবিগঞ্জ নির্বাচন করলাম। 

    দ্বিতীয় ধাপ – খতিয়ানের ধরন, উপজেলা ও মৌজা

    খতিয়ান ধরন নির্বাচন করুন বাটনে ক্লিক করুন এবং “নামজারি” অপশনটি বেছে নিন। এখান থেকে অন্যান্য যেকোন ধরনের খতিয়ান নির্বাচন করে সেটাও অনুসন্ধান করতে পারবেন। 

    তারপর উপজেলা নির্বাচন করুন, এর জন্য উপজেলা বাটনে ক্লিক করুন এবং আপনার জমির উপজেলাটি বাছাই করে নিন, যেমন – আমার জমির উপজেলা নবিগঞ্জ তাই আমি নবিগঞ্জ নির্বাচন করলাম। 

    তারপর মৌজা নির্বাচন করতে হবে, মৌজার আরেক নাম হলো গ্রাম, তু আপনার জমি যেই যায়গায় আছে সেখানকার মৌজা নাম অথবা গ্রাম নাম যেটা এখানে আছে সেটা নির্বাচন করুন। 

    খতিয়ান তথ্য সাবমিট ও যাচাই

    এটি খুবি গুরুত্বপূর্ণ একটি ধাপ, এখানে চারটি অপশন দেখতে পারবেন। এর মধ্যে আপনার কাছে যেই তথ্যটি আছে এখানে সেটাই নির্বাচন করুন, যেমন আপনার কাছে যদি শুধু মাত্র জমির দাগ নম্বর থাকে তাহলে “দাগ নং” অপশনটি নির্বাচন করুন এবং দাগ নম্বরটি লিখুন। 

    এরপর একদম শেষ অংশে থাকা ক্যাপছা পূরণ করুন, বাম সাইডে থাকা ইংরেজি সংখ্যা ডান সাইডে লিখুন। 

    সবকিছু ঠিক থাকলে ই নামজারি সম্পন্ন করতে “অনুসন্ধান করুন” বাটনে চাপুন। ব্যাস তারপরেই আপনার ই নামজারি খতিয়ানটির সমস্থ তথ্য দেখতে পারবেন।  

    ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ই নামজারি আবেদন চেক 

    আপনি যদি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ই নামজারি আবেদন চেক করতে চান কিংবা ই নামজারি যাচাই করতে চান তাহলে এখানে ক্লিক করুন।

    আরও পড়ুনঃ ওয়েবসাইটের মাধ্যমে খতিয়ান ও দাগের তথ্য অনুসন্ধান

    উপসংহার

    ই নামজারি যাচাই কিংবা নতুন ই নামজারি আবেদন চেক এই দুইটাই আমাদের দেখানো এই নিয়ম অনুস্মরণ করে যাচাই করতে পারবেন। 

    আমাদের লিখা পোষ্ট আপনার কাজে আসলে শেয়ার করে অন্যদের শিখতে এবং জানতে সাহায্য করুন, ধন্যবাদ। 

    Related Post
    ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান
    খতিয়ান ও দাগের তথ্য অনুসন্ধান
    খতিয়ান/পর্চা অনুসন্ধান
    নাম দিয়ে জমির মালিকানা যাচাই

    FAQs

    নামজারি আবেদন চেক করার নিয়ম

    নামজারি খতিয়ানের জন্য আবেদন করার পর নামজারি আবেদন চেক করার প্রয়োজন হয় এক্ষেত্রে আমাদের অন্য একটি ওয়েবসাইট ব্যাবহার করতে। নামজারি আবেদন চেক করার জন্য নামজারি ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন, তারপর আবেদনের সর্বশেষ অবস্তা মেন্যুতে ছ্যাপ দিন।

      • তারপর আপনার বিভাগ নির্বাচন করুন,
      • তারপর আবেদন আইডি লিখুন,
      • তারপর জাতীয় পরিচয়পত্র নাম্বার লিখুন,
      • তারপর দুটি সংখ্যার যোগফল বসিয়ে “খুঁজুন” বাটনে ক্লিক করে নামজারি আবেদন চেক করুন।

    নামজারি খতিয়ান অনুসন্ধান

    নামজারি খতিয়ান অনুসন্ধান করার জন্য যেতে হবে Land Gov BD ওয়েবসাইটে, তারপর সেখান থেকে স্মার্ট ভূমি রেকর্ড ও ম্যাপ মেন্যুতে ছ্যাপ দিতে হবে, তাহলে অন্য একটি পেইজে নিয়ে যাবে সেখান থেকে আবারও মেন্যু থেকে নামজারি খতিয়ান অপশনে ছ্যাপ দিয়ে নির্বাচন করতে হবে।

    তারপর জমির ঠিকানা বিভাগ, জেলা, উপজেলা, এবং মৌজা নির্বাচন করতে হবে। তারপর খতিয়ানের তালিকা অপশনে আপনার নামজারি খতিয়ান নাম্বারটি দিয়ে খুঁজুন বাটনে ক্লিক করলেই আপনার নামজারি খতিয়ানের তথ্য প্রদর্শিত হবে।

    ই নামজারি আবেদন করার নিয়ম

    ই নামজারি আবেদন করার জন্য Mutation Land Gov BD ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন, তারপর নামজারি আবেদন মেন্যুতে ছ্যাপ দিন, এরপর আপনার সামনে একটি নামজারি আবেদন ফর্ম আসবে সেটা বিস্তারিত সকল তথ্য দিয়ে ফিলাপ করতে হবে।

    প্রথমেই নামজারি আবেদনের কোর্ট ফী প্রধানের জন্য নতুন “নামজারি আবেদনের কোর্ট ফি নম্বর” তৈরি করতে চাই বাটনে ছ্যাপ দিতে হবে, তারপর পুর ঠিকানা বিভাগ, জেলা, উপজেলা নির্বাচন করতে হবে। তারপর জাতীয় পরিচয়পত্র নাম্বার দিতে হবে এবং সে অনুযায়ী নাম ও জন্ম তারিখ দিতে হবে। এরপর আবারও নামজারি আবেদন পেইজে এসে আরও বেশ কিছু তথ্য দিতে হবে।

    ই নামজারি আবেদন করার জন্য প্রয়োজন হবেঃ 

      • জমির মালিকানা সূত্র

      • ক্রেতা/বাদী/গ্রহীতার তথ্য

      • মৌজা নির্বাচন করুন

      • আবেদন সংক্রান্ত ঘোষণা

      • জমির তফসিল ও গ্রহীতার তথ্য

      • দাতার তথ্য ও প্রয়োজনীয় তথ্য সংযুক্তি

    এছাড়াও আরও কয়েকটি তথ্য দরকার হতে পারে।

    x