Skip to content

মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো

    মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো – বর্তমানে চলছে ডিজিটাল যোগ আর এখনকার সকল বিজনেস এবং কাজকর্মও হয়ে যাচ্ছে অনলাইন ভিত্তিক, আর অনলাইন ভিত্তিক কাজ হওয়ার কারণে নিজের ঘড়ে বসেই পৃথিবীর যেকোন দেশে অনলাইনে চাকরি করা যায় এবং একজন লোক একাদিক কোম্পানি তেও কাজ করতে পারে। আর এটাকেই আমরা বলি ফ্রিল্যান্সিং। 

    অফিসিয়াল ভাবে ফ্রিল্যান্সিং কাজ করতে দরকার হয় একটি কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এর সেই থাকে থাকতে হয় দ্রুত গতির ইন্টারনেট সংযোগ। তবে বাংলাদেশের অধিকাংশ মানুষ দারিদ্র্য সিমার নিচে বসবাস করায় অনেকের কাছে কম্পিউটার বা ল্যাপটপ কিনার মত পর্যাপ্ত টাকা থাকেনা, তাই অনেকে মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো এটা লিখে অনলাইনে সার্চ করেন জানার জন্য এবং মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ কিভাবে করতে হয় এটাও জানতে চান অনেকে। 

    আমি আপনাদের নিশ্চিত করছি আপনি যদি এই পোষ্ট শেষ পর্যন্ত পরেন তাহলে মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো এই প্রশ্নের শতবাগ সত্য তথ্য জানতে পারবেন। 

    মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো

    মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো এই প্রশ্নের উত্তরে বলতে হয়, 

    উত্তরঃ মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং শিখা যায়, তবে কাজ করা কঠিন। 

    বিস্তারিতঃ আপনি যেই কাজটি শিখতে চান সেটার উপর অনেক ভালো ভালো প্রতিষ্ঠান ভিডিও কোর্স করিয়ে থাকে, আপনি চাইলে অনলাইনে পেইড কোর্স কিনে কাজ শিখতে পারেন, আপনি মোবাইল দিয়েই ভিডিও দেখে কাজ শিখতে পারবেন সহজেই। তবে সকল কাজ হয়তো মোবাইল দিয়ে সহজে করতে পাবেন না। 

    এছাড়াও আপনি ইউটিউব এবং ফেসবুক এর ভিডিও দেখেও কাজ শিখতে পারেন, তবে ইউটিউবে পাবলিক করা কাজ শিখানোর ভিডিও গুলো অনেক সময় গুছানো থাকেনা। এই জন্য বুজতে সমস্যা হতে পারে। তাই পেইড কোর্স করলে সবচেয়ে ভালো হয়, তবে ভিডিও দেখেও ফ্রিল্যান্সিং শিখা সম্ভব। 

    মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং শিখতে হলে প্রথমে আপনার নির্ধারণ করতে হবে আপনি কোন বিষয় নিয়ে ফ্রিল্যান্সিং শিখবেন। 

    কারণ ফ্রিল্যান্সিং বলতে শুধু একটি কাজকে বুজানো হয়না, অনলাইনে টাকা উপার্জন করার জন্য যত ধরনের কাজকর্ম করা হয় তার সবগুলোকে এক্ষত্রে বলা হয় ফ্রিল্যান্সিং। এর মধ্যে ভালো কাজ এবং খারাপ কাজ দুটি রয়েছে। তাই আপনার প্রথমে নির্ধারণ করতে হবে আপনি কোন বিষয় নিয়ে ফ্রিল্যান্সিং শিখবেন।

    তবে ফ্রিল্যান্সিং এর ছায়াতলে রয়েছে কিছু জনপ্রিয় কাজ যেগুলো বাংলাদেশের অধিকাংশ ফ্রিল্যান্সির করে থাকেন এবং ভালো পরিমান টাকা উপার্জন করছেন। 

    জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং কাজ এবং কোঁথায় শিখলে ভালো হবে

    জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং কাজ গুলোর মধ্যে প্রথম সারিতেই রয়েছে, 

    ডিজিটাল মার্কেটিংপেইড কোর্সফ্রী কোর্স
    গ্রাফিক্স ডিজাইনপেইড কোর্সফ্রী কোর্স
    ওয়েব ও অ্যাপ ডেভেলপমেন্টপেইড কোর্স

    এই তিনটি কাজ পুর পৃথিবীতে অনেক বেশি রয়েছে, আপনি যদি এই চারটি কাজের মধ্যে যেকোন একটি কাজে Expert হতে পারেন তাহলে প্রতিমাসে লক্ষেরও বেশি টাকা আয় করা শুধু সময়ের ব্যাপার। 

    তবে এই কাজ গুলো মোবাইল দিয়ে শিখতে হলে আপনার জানতে হবে কোন প্রতিষ্ঠান থেকে কোন কোর্স ক্রয় করলে আপনি ভালো কাজ শিখতে পারবেন। ফ্রিল্যান্সিং শিখার জন্য পেইড এবং ফ্রী কোর্স দুটিই রয়েছে, ফ্রী কোর্স করে ফ্রিল্যান্সিং শিখা একটু কষ্টকর তবে পেইড কোর্স কিনলে সবকিছু ভালো বুজতে পারবেন। 

    মোবাইল দিয়ে ডিজিটাল মার্কেটিং শিখার সেরা পেইড এবং ফ্রী কোর্স

    ডিজিটাল মার্কেটিং বর্তমানে অনলাইন জগতের সবচেয়ে দামি একটি কাজ বলা চলে, এই কাজটি প্রায় সকল প্রকার অনলাইন বিজনেসে প্রয়োজন হয় এবং ডিজিটাল মার্কেটিং করে বিজনেস না করে নিজেই অনেক টাকা আয় করা যায়। তবে আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং শিখে অন্যান্য দেশের মানুষকে ডিজিটাল মার্কেটিং সার্ভিস দিতে পারেন। 

    এতে করে বিজনেস এর মত আপনার কোন রিক্স থাকবেনা, একসাথে একাদিক কোম্পানিতে কাজ করতে পারবেন। 

    ডিজিটাল মার্কেটিং ফ্রী কোর্স 

    আপনি যদি কোন টাকা খরছ না করে ফ্রীতে ইউটিউব ভিডিও দেখে ডিজিটাল মার্কেটিং শিখতে চান তাহলে FSD Freelance Help ইউটিউব চ্যানেলের ডিজিটাল মার্কেটিং ফ্রী কোর্স করতে পারেন। 

    ডিজিটাল মার্কেটিং পেইড কোর্স

    ডিজিটাল মার্কেটিং শিখার জন্য আপনি যদি টাকা খরচ করতে পারেন সেই সাথে সকল নতুন নতুন আপডেট সম্পর্কে জানতে চান এবং শিখতে চান তাহলে আপনার জন্য সেরা একটি পেইড কোর্স হতে পারে বাংলাদেশের সেরা ডিজিটাল মার্কেটার খালিদ ফারহানের কোর্স Passive Journal Digital Marketing Course 

    এখানে আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং এর সকল বিস্তারিত বিষয় সহ নতুন নতুন সকল আপডেট পাবেন, তবে এই কোর্সটির দাম অনেক বেশি ২৫ হাজার টাকা, যা অনেকের জন্য কিনা সম্ভব নাও হতে পারে। তাই আমরা আরও একটি সেরা পেইড কোর্স আপনাদের শেয়ার করছি সেটা হলো Ostad Full Stack Digital Marketing course. 

    এই কোর্সটির দাম মাত্র ১২ হাজার টাকা এবং ৮ মাসের একটি কোর্স। এই কোর্সটি লাইভ ক্লাসের মাধ্যমে করা হয়। ৮ মাসের এই কোর্সটি খুবি আপডেটেড ও গুছানো। 

    গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখার পেইড ও ফ্রী কোর্স

    গ্রাফিক্স ডিজাইনারদের অনেক বেশি কাজ রয়েছে দেশে এবং দেশের বাহিরে, এই কাজে যদি আপনি ভালো করে আয়াত্ত করতে পারেন তাহলে খুব সহজেই ৩০ হাজার থেকে ১ লক্ষ্য মাসে আয় করতে পারবেন, এর থেকে কম বেশিও হতে পারে। 

    গ্রাফিক্স ডিজাইন ফ্রী কোর্স

    গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখার জন্য আপনার ইউটিউব অ্যাপটিকে কাজে লাগাতে পারেন, কারন Pentanik IT Solution Park নামের ইউটিউব চ্যানেলে ফ্রীতে গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখতে পারবেন। 

    এখানে প্রায় ৬০ এরও অধিক গ্রাফিক্স ডিজাইনিং ভিডিও রয়েছে। ধারাবাহিক ভাবে ভিডিও দেখলে এসব ফ্রী ভিডিও দেখে পরিপূর্ণ গ্রাফিক্স ডিজাইনিং শিখা যায়। 

    গ্রাফিক্স ডিজাইন পেইড কোর্স

    গ্রাফিক্স ডিজাইনের উপর অনেক প্রতিষ্ঠান ভালো ভালো পেইড কোর্স প্রধান করে থাকে, এর মধ্যে অন্যতম হলো Creative IT institute

    এই প্রতিষ্ঠানটি বর্তমানে বাংলাদেশের সেরা IT প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে। গ্রাফিক্স ডিজাইনের উপর তাদের অনেক গুলো কোর্স রয়েছে তাদের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে টা দেখে নিতে পারেন, তবে কোর্স ক্রয় করার আগে অবশ্যই তাদের ফেসবুক পেইজে ডিস্কাউন্ট সম্পর্কে কথা বলে নিবেন। 

    ওয়েব ও অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট শিখতে ফ্রী এবং পেইড কোর্স

    ওয়েব ও অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট একটি কঠিন কাজ, তাই কাজটি শিখতে আমি ফ্রী কোর্স রেকমেন্ড করিনা, আমি যদি সত্যি ওয়েব ও অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট শিখতে চান তাহলে Ostad অথবা Creative IT Institiute এর মধ্য থেকে যেকোন একটা প্রতিষ্ঠানে কোর্স করতে পারেন। 

    ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ কিভাবে করতে হয়

    ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ করতে হলে আপনাকে প্রথমে ফ্রিল্যান্সিং শিখতে হবে, ফ্রী অথবা পেইড কোর্স করার মাধ্যমে, তারপর ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেস গুলোতে অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে, তারপর আরও কিছু প্রসেস আছে যেগুলো আপনি এখন বুজবেন না, 

    তবে আপনি যখন ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ শিখে যাবেন তখন কাজ পাওয়ার সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা পাবেন। কারণ যেই প্রতিষ্ঠান থেকে ফ্রিল্যান্সিং শিখবেন তারা আপনাকে কাজ পাওয়ার মাধ্যমও শিখিয়ে দিবে। 

    উপসংহার

    মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো এটা আমরা আপনাদের বিস্তারিত জানিয়েছি, ফ্রিল্যান্সিং শেখার জন্য অবশ্যই ধৈর্য সহকারে অন্তত এক বছর সময় নিবেন। অনেক যায়গায় দেখতে পাবেন ৩০ দিনের, ৬০ কোর্স এগুলো কখনো কিনবেন না। 

    এছাড়া অনেকে অফার করবে ৩০ দিনের কোর্স শেষ ৫০ হাজার টাকা মাসিক আয়ে চাকরি, তাদের থেকে অনেক অনেক দূরে থাকুন। কারণ ফ্রিল্যান্সিং খুব কঠিন একটি কাজ আপনি যদি অন্তত ৬ মাস সময় না নিয়ে শিখেন তাহলে এর মাজেই ডোবে যাবেন। 

    x